Rules for using face contouring and highlighter

অনেকেই মনে করে মেকাপ মানেই চেহারা কে অন্যরকম দেখানো, স্কিন শেড প্রয়োজনের বেশী লাইট দেখানো ছাড়াও আরো কত কি। যদি আপনিও এমনটা ধারণা করে থাকেন,  তাহলে বলবো আপনার মেকাপের জ্ঞানকে আরেকটু বাড়িয়ে নেন। 

আর আপনাকে মেকাপ নিয়ে A-Z জানাতে আমাদের এই প্রচেষ্টা, তাই ঘুরে আসুন আমাদের সব ব্লগ থেকে। 

আজকের ব্লগটি তে জানতে পারবেন কনট্যুরএবং হাইলাইটার নিয়ে। 

হাইলাইটার সম্পর্কে কম বেশী আমরা সবাই জানি। যেটা নিয়ে সবচেয়ে বেশী চিন্তিত থাকি সেটা হলো কনট্যুর। 

তাহলে চলুন আগে জানা যাক কনট্যুর সম্পর্কে। 

★★ Contour / Contouring 

কনট্যুর বুঝতে হলে শুরুতেই আপনাকে একটি কাজ করতে হবে। সেটা হলো আয়নায় একবার নিজের মুখের বিভিন্ন অংশ গুলো ভালোভাবে দেখে নিন। 

এরপর ত্বককে পুরোপুরি ফাউন্ডেশনের উপযোগী করে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন।  এরপর আবারও আপনার মুখের বিভিন্ন অংশগুলো দেখে নিন। 

এবার বলুন কি কি পার্থক্য দেখছেন? 

এই প্রশ্নের উত্তরে সবাই বলবেন আপনার মুখের শেইপ বুঝা যাচ্ছে না, মুখের বিভিন্ন অংশে আলোছায়া খেলার যে ব্যাপারটা থাকে সেটা ফাউন্ডেশন ব্যবহারের পর উধাও। 

এবার আপনাদের প্রশ্নের উত্তর দিই!

Jordana in Bangladesh

আমাদের ত্বকে আলোছায়া খেলার একটা ব্যাপার থাকে যেটার কারণে আমাদের স্কিনে একটা পারফেক্ট শেইপ থাকে কিন্তু ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে আমাদের সেই শেইপ চলে গিয়ে একটা সমতল ভাব সৃষ্টি করে। যার কারণে মেকাপকে উদ্ভট মনে হয় আর ন্যাচরাল মনে হয় না৷  

Contour এর কাজ হচ্ছে আপনার মুখের শেইপ টা ফিরিয়ে আনা মেকাপে। 

আর Contour করার প্রক্রিয়া টাই হলো Contouring 

Wet N Wild MegaGlo Contouring Palette – 750A Caramel Toffee

 

★Contour / contouring এর ব্যবহার 

Contour ব্যবহারের জন্য আপনাকে কয়েকটি ধাপ অবশ্যই মেনে চলতে হবে। 

১) মুখের চোয়াল কনট্যুর: এক্ষেত্রে আপনাকে  Bronzing Powder বাছাই করতে হবে ত্বকের রঙের চেয়ে দু/তিন শেড গাঢ়। কানের উপরিভাগ থেকে শুরু করে চোয়ালের মাঝ পর্যন্ত এবং ঠিক চোয়ালের হাড় বরাবর Bronzer  লাগান, ব্রাশ ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে তা ভালো করে ব্লেন্ড করে দিন।

২)হেয়ার লাইন / চুলের অংশ : আমরা স্কিনে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করার পর যখন আমাদের হেয়ার স্ক্যাল্পে খেয়াল করি তখনই মেকাপ টা আমাদের স্কিন শেডের চেয়ে লাইট মনে হয়। তাই আপনার মেকাপে ন্যাচরাল লুক দিতে আপনাকে অবশ্যই  হেয়ার লাইন কনট্যুর করতে হবে।কানের পাশ থেকে টেনে কপালের চুলের লাইনে হালকা করে Bronzer লাগান।

৩) নাক কনট্যুর:  এবার বলতে পারেন নাক কনট্যুর কি? 

একটু খেয়াল করলেই দেখবেন আমাদের সবার নাকের গঠন একই না। কারো শরু চিকন কিংবা কারো টা একটু চ্যাপ্টা। 

কিন্তু আমরা সবাই চাই আমাদের নাকটা চিকন মনে হোক। এক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করবে Contour. 

চ্যাপ্টা অথবা ছোট আরেকটি ব্রাশ দিয়ে নাকের দুপাশে Bronzer লাগান। এতে করে আপনার নাকের দুপাশে একটি ছায়া সৃষ্টি হবে যা আপনার নাক কে শরু দেখাবে। 

৪) জ-লাইন / থুতনি কনট্যুর  : আমাদের অনেকের ডাবল চিনের  সমস্যা থাকে যার কারণে মেকাপ লুক সুন্দর কম দেখায়। তাই আপনার এই অংশটুকু Contouring করা সমান ভাবেই গুরুত্বপূর্ণ।  

থুতনির নিচ থেকে কানের পিছ পর্যন্ত Bronzer লাগান এবং গলার দিকে মিশিয়ে দিন। গলার কাছে এভাবে Contour করে ‘ডাবল-চিন’ অনেকাংশে ঢেকে ফেলা যায়।

nior Bangladesh

★ টিপস 

১)আপনি যদি লিকুইড কন্টোর ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে খুবই সামান্য পরিমান প্রোডাক্ট নিয়ে Contouring করবেন। যদি বেশী হয় সেক্ষেত্রে আপনার মুখ বেশী চাপা দেখাবে যা মেকাপকে বাজে দেখাবে। 

২) যারা লিকুইড কনট্যুর ব্যবহার করতে চান না তারা পাউডার কনট্যুর  ব্যবহার করতে পারেন যেটাকে

 Bronzer বলা হয়। 

মনে রাখবেন Contour  কিংবা  Bronzer যেটাই ব্যবহার করবেন খুবই অল্প অল্প প্রোডাক্ট নিয়ে ব্যবহার করবেন। 

৩) Contouring  এর সময় প্রোডাক্ট ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। নয়তো কনট্যুর লাইন বুঝা যাবে এতে মেকাপ Cakey মনে হবে। 

 

★★হাইলাইটার / Highlighter 

আপনার মুখে ফাউন্ডেশন ব্যবহারের পূর্বে খেয়াল করবেন একটা নিজস্ব গ্লো থাকে যা ফাউন্ডেশন ব্যবহারের পর ভেনিশ হয়ে যায় আর মেকাপকে ফেইড দেখায়। 

আপনার  ত্বকে গ্লোয়িইং ভাব ফিরিয়ে আনতে ব্যবহার করুন হাইলাইটার। আমাদের মুখে আলোছায়া ফিরিয়ে আনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং শেষ ধাপ হলো হাইলাইটার।

হাইলাইটার ২ ধরনের আছে। লিকুইড হাইলাইটার এবং পাউডার হাইলাইটার। 

 

এবার চলুন জানা যাক, হাইলাইটারের সঠিক ব্যবহার। 

 

★হাইলাইটার / Highlighter এট ব্যবহার

১) চোয়াল অংশ : চোয়ালের উপরে হাড়ের উপরি অংশে অল্প হাইলাইটার ব্যবহার করুন একটি ফ্যান ব্রাশ কিংবা আপনার সুবিধামত ব্রাশ দিয়ে। 

Technic Matte Mega Highlighter in Bangladesh

২) Eye brow bone : আপনার eye brow এর নিচের অংশে অল্প হাইলাইটার ব্যবহার করে নিতে পারেন। এতে করে আপনার চোখের সাজ হাইলাইট করতে সাহায্য করবে। 

৩) নাকের উপরিংশ : আমাদের মুখের সবচেয়ে উঁচু অংশ হলো আমাদের নাকের অংশ। 

আপনার পুরো মেকাপকে ফুটিয়ে তুলতে এই অংশ হাইলাইট করা আবশ্যক। 

৪) ঠোঁটের উপরিংশ : ঠোঁটের উপরে উঁচু অংশ এবং ঠোঁটের নিচের অংশ সামান্য হাইলাইট করে নিতে পারেন। 

৫) ফেস গ্লো : আমরা অনেকেই মেকাপের ক্ষেত্রে matte লুকের চেয়ে একটু ডিউয়ি বা গ্লোয়িইং মেকাপ পছন্দ করি সেক্ষেত্রে অল্প একটু লিকুইড হাইলাটার আপনার ফাউন্ডেশনের সাথে ভালোভাবে মিশিয়ে ব্যবহার করুন। এতে আপনার মেকাপ ফেইড দেখাবে না। 

 

★টিপস

১)চোয়ালের অংশ হাইলাইটার ব্যবহার করবেন আপনার ব্লাশ পয়েন্টের উপরের অংশ দিয়ে। সাথে খেয়াল রাখবেন যেনো ভালোভাবে blending হয়। হাইলাইটার লাইন বুঝা গেলে মেকাপ বাজে মনে হয়৷ 

২)লিকুইড হাইলাইটার ব্যবহারের ক্ষেত্রে পরিমান মতো ব্যবহার করুন নয়তো মেকাপ কালচে হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 

৩) নাক  হাইলাইট করার ক্ষেত্রে নাকের উপরের অংশ পুরোটাই হাইলাইট করবেন না, এতে নাকের হাইলাইট লাইন স্পষ্ট হয়ে যায়। 

Wet & Wild MegaGlo Highlighting Powder-Precious Petals in Bangladesh

৪) Eyebrow- Bone হাইলাইটের ক্ষেত্রে আপনার Eyebrowএর নিচের পুরো অংশ হাইলাইট করবেন না। আপনার Eyebrow এর Arch পয়েন্টেই কেবল হাইলাটার ব্যবহার করবেন। 

পারফেক্ট কনট্যুর এবং হাইলাইটারের ব্যবহার ই পারে আপনার মেকাপকে ন্যাচরাল এবং সুন্দর করে তুলতে। 

তাই মেকাপ মানেই কঠিন কিছু না ভেবে,আয়ত্তে আনুন মেকাপের খুটিনাটি সম্পর্কে আর পেয়ে যান ফ্ল-লেস মেকাপ লুক।

 

লেখকঃ ইফতিহা জান্নাত ( বিউটি এক্সপার্ট কারনেসিয়া )

তথ্য ও ছবিঃ গুগোল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *