What is Night Glow Serum?

আমরা সবাই চাই ফর্সা ও উজ্জ্বল ত্বক। ত্বকের নিয়মিত পরিচর্যার অভাবে ত্বক হয়ে পড়ে রুক্ষ আর অনুজ্জ্বল। ত্বককে উজ্জ্বল এবং ত্বকের সব সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে দরকার ত্বকের নিয়মিত যত্ন।  

ত্বকের পরিচর্যার জন্য সিরাম খুবই উপকারী। এটি ত্বককে ভেতর থেকে আদ্র রাখতে সাহায্য করে।

দিনে সিরাম ব্যবহার করার পাশাপাশি আমাদের উচিত ঘুমানোর আগে রাতেও সিরাম ব্যবহার করা। কারণ আমাদের দেহের যত ক্ষতি হয় সারাদিনে তা পরিপূর্ণ হতে আমাদের কোষ সক্রিয় থাকে রাতের বেলা। তাই রাতে ঘুমানোর আগে ত্বকের পরিচর্যা অবশ্যই করতে হবে। আর আপনি যদি চান আপনার ত্বক উজ্জ্বল হোক সেক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই রাতে গ্লো সিরাম ব্যবহার করতে হবে। 

বাজারে ভালো ব্র্যান্ডের গ্লো সিরামের মূল্য বেশী থাকার কারণে এটা ব্যবহারে আমাদের অনেকের অনীহা থাকে। কারণ গ্লো সিরামে থাকা ভারী কেমিক্যাল অনেকের ত্বকে suit করে না। তাই বেশী মূল্যে নাইট সিরাম না নিয়ে চাইলে আপনি ঘরে বসেই তৈরী করে নিতে পারেন নাইট গ্লো সিরাম। 

★★ গ্লো নাইট সিরাম তৈরীর উপায় 

১) লেবুর রস অর্ধেকটা, গ্লিসারিন আধা চা চামচ, অলিভ অয়েল আধা চা চামচ, অ্যালোভেরা জেল ১ চা চামচ, ভিটামিন ই ক্যাপসুল ১টি, গোলাপজল আধা চা চামচ। 

সবকয়টি উপকরণ একটি পাত্রে খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। মিশানোর পর দেখতে সিরামের মতোই হবে। প্রতিদিন রাতে মুখ ভালো করে ফেসওয়াশ দিয়ে পরিষ্কার করুন। এবার অল্প করে এই গ্লো সিরাম হাতে নিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন। এই সিরামটি এক সপ্তাহ পর্যন্ত ফ্রিজে রেখে দেয়া যায়। 

Milani in Bangladesh

২) ৩ চা চামচ গোলাপজল, আধা চা চামচ অ্যালোভেরা জেল, আধা চা চামচ অলিভ অয়েল।সবকিছু মিশিয়ে একটি এয়ারটাইট পাত্রে নিয়ে ফ্রিজে রাখতে হবে। এটি সাত থেকে আট দিন ফ্রিজে রাখা যায়। প্রতিদিন ঘুমানোর আগে ময়েশ্চারাইজারের মতো সিরামটি মুখে লাগান। সকালে ঘুম থেকে উঠে ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ফেলুন।

গোলাপজল ঘরেই তৈরী করে নিতে পারেন কিংবা ব্যবহার করতে পারেন Skin cafe rose water এটা ১০০% অর্গানিক। 

Nature Republic aloe gel / skin cafe aloe gel ব্যবহার করতে পারেন। 

 

৩)  ২ টেবিল চামচ এলোভেরা জেল, দুইটা ভিটামিন ই ক্যাপসুল। দুইটা ভিটামিন এ ক্যাপসুল। আধা চামচ গ্লিসারিন রোজওয়াটারঅয়েলি স্কিন যাদের তারা কোনো চিন্তা ছাড়াই ই এবং এ ক্যাপসুল ইউজ করতে পারবেন।

সকল উপকরণ একসাথে মিশ্রণ করে একটি পাত্রে রাখুন। এটি ২ সপ্তাহ পর্যন্ত ভাল থাকবে, তাই সে পরিমাণ তৈরি করুন। ঠাণ্ডা ও শুষ্ক স্থানে রাখবেন এটি সবসময়।

সপ্তাহে তিনদিন লাগাবেন। লাগানোর আগে ফেইস ওয়াশ করে স্ক্রাব করবেন তারপর সিরাম লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়বেন। যাদের খুব অয়েলি স্কিন তারা দুটার বদলে একটা করে ক্যাপসুল ইউজ করবেন। আর এই সিরাম অনায়সে দুই সপ্তাহ ফ্রিজে স্টোর করে ইউজ করতে পারবেন। কোনো সমস্যা হবেনা।

৪) ২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল,১ টেবিল চামচ জোজোবা অয়েল,৫ ফোটা ল্যাভেন্ডার অয়েল।

একটি কাঁচের বোতলের মুখে ছোট ফানেল (Small funnel) লাগান, এবার একে একে উপকরণগুলো ফানেল দিয়ে সাবধানে বোতলে ঢালুন। এবার বোতলটি ভালোভাবে ঝাঁকিয়ে নিন। এমনভাবে ঝাঁকান যেন অ্যালোভেরা জেলের সাথে সব উপকরণ ভালোভাবে মিশে যায়। এবার এটি ফ্রিজে রেখে দিন। প্রতিবার ব্যবহারের পূর্বে ভালোভাবে বোতলটি ঝাঁকিয়ে নিবেন। এটি খুব বেশি ব্যবহার করা লাগে না। কয়েক ফোটা হাতে নিয়ে মুখে ভালোভাবে ম্যাসাজ করে নিলেই হবে। তবে ব্যবহারের পূর্বে মুখ অবশ্যই ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিবেন।

আমার  পার্সোনালি ilana ব্র্যান্ডের Jojoba oil বেস্ট লাগে ত্বকের জন্য। চাইলে ওটা ব্যবহার করতে পারেন আপনার ত্বকের যত্নে।  

আপনার স্কিনকেয়ারের সব প্রোডাক্টস পেতে ভিজিট করুন carnesia.com এ।  

 

★★সতর্কতা 

১) সিরাম অল্প তৈরী করে যাচাই করে নিন কোনো উপকরণে আপনার এলার্জির সমস্যা হয় নাকি। তারপর ব্যবহার করুন এবং সংরক্ষণ করুন। 

২) ৪টি পদ্ধতি থেকে ত্বক উপযোগী যেকোনো একটি সিরাম ব্যবহার করুন ভালো ফলাফলের জন্য।

৩) এক ে সাথে অঙ্ক গুলো সিরাম ব্যবহার থেকে বিরত থাকবেন।

৪) গ্লো সিরামের কার্যকারিতা পেতে অবশ্যই রাতে ব্যবহার করুন। 

৫) সিরাম ব্যবহারের পর অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন এতে সিরামের কার্যকারি গুন বজায় থাকবে।

 

লেখকঃ ইফতিহা জান্নাত ( বিউটি আডভাইসার কারনেসিয়া )

তথ্য ও ছবিঃ গুগোল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *