এন্টি এজিং এ মধুর ফেসিয়াল মাস্ক এবং ৫টি মধুর মাস্কের ব্যবহার। জেনে নিন ত্বকের ধরনভেদে কিভাবে এন্টি এজিং দূর করবেন

Share

মধু আমাদের সবার কাছে খুবই পরিচিত একটি নাম। বিভিন্ন স্বাস্থ্যবিদের মতে, প্রতিদিনকার খাবারের মেন্যু তে মধু রাখা গেলে তা আমাদের শরীরের অনেক রোগকেই দূর করতে সাহায্য করবে।

মধু যেমন আমাদের প্লেটে শোভা পায় ঠিক ততটাই কার্যকরী ভূমিকা রাখে আমাদের রূপচর্চায়।

একটু খেয়াল করলেই দেখতে পাবেন আমাদের যা যা সমস্যা নিয়ে চিন্তিত থাকি তার বেশীর ভাগই আমাদের ত্বক এবং চুলের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে।

যত ধরনের সমস্যা যেন আমাদের ত্বকেই। কখনো ব্রণ, কখনো রেশ,কখনো বা পিগমেন্টেশন কিংবা কখনো বা বলিরেখা। 

তবে শুনলে অবাক হবেন, সব ধরনের সমস্যার সমাধান দিতে পারে মধু।  এন্টি এজিং সমস্যা দূর করতে মধুর উপাকরীতা অনেক। 

খুব সহজেই আপনি মধু ব্যবহার করে আপনার এন্টি এজিং সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। 

★★এন্টি এজিং মাস্ক 

১) স্বাভাবিক / সাধারণ ত্বকের জন্য : ২ চা চামচ মধু,  ২ চা চামচ অ্যাভেকাডো এবং ১টি ডিমের কুসুম নিয়ে একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। ত্বক ভালোভাবে পরিস্কার করে মাস্কটি মুখে লাগিয়ে ২৫মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। 

এই মাস্ক টি আপনার ত্বকে এন্টি এজিং দূর করতে সাহায্য করবে সাথে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়িয়ে দিবে। 

২) তৈলাক্ত ত্বকের জন্য :  হাফ গাজর নিয়ে ভালোভাবে পেস্ট করে নিন। এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে মিনিট দশেক ফ্রিজে রেখে দিন। এর পর মুখ ধুয়ে এই পেস্ট আপনার পরিষ্কার করা ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে দিয়ে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

গাজরে থাকা ভিটামিন এ, সি আর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। মধুর মধ্যে থাকা ভেষজ উপাদান, এনজাইম আর সুগার ত্বকের লাবণ্য বৃদ্ধিতে সহায়ক।

৩) শুষ্ক ত্বকের জন্য : ১চা চামচ মধু, ১ চা চামচ দই,  ১টি ডিমের কুসুম আর হাফ চা চামচ আমন্ড অয়েল একটি পাত্রে নিয়ে নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না মাস্ক টি আটালো হচ্ছে।  

এবার এই মিশ্রণ মুখে লাগিয়ে অন্তত ১০ মিনিট রেখে মুখ ভাল করে ধুয়ে নিন।

 

মধু আপনার ত্বক স্নিগ্ধ করবে, আমন্ড আর ডিমের কুসুম ত্বককে মশ্চারাইজ করবে, দই ত্বককে পরিশোধিত আর সতেজ করবে।

আমন্ড অয়েলের ক্ষেত্রে Skin cafe Almond oil / Ilana Almond oil ব্যবহার করতে পারেন।  ২টা অয়েলে খুবই ভালো এবং মোস্টলি রিভিউড প্রোডাক্ট।

৪) সংবেদনশীল / সেন্সিটিভ ত্বকের জন্য : হাফ চা চামচ মধু, ১টি পাকা কলা পেস্ট, দুধ দিয়ে সিদ্ধ করা ১ কাপ ওটমিল, ১টা ডিম।সবকটি উপকরণ একসঙ্গে নিয়ে ভাল করে মিশিয়ে আপনার ত্বকে সমান অনুপাতে লাগান। ১০-১৫ মিনিট মাস্কটি রেখে উষ্ণ জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

ওটমিলে থাকা ভিটামিন ও মিনারেলস, এটি ত্বককে নিখুঁত ভাবে পরিষ্কার করে। কলায় থাকা ভিটামিন এ এবং ডিমের লিকিথিন (lecithin) ত্বকের উপর প্রাকৃতিক প্রলেপের কাজ করে যা ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। তাছাড়া মধু ন্যাচারালি ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে।

৫) সব ধরনের ত্বকের জন্য : ১ চামচ মধু, ৩ ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেন্সিয়াল অয়েল একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিয়ে  মাস্কটি মুখে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট রেখে আবার কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। 

এন্টি এজিং ফেসিয়াল মাস্ক হিসেবে এই মাস্কটি সব ধরনের ত্বকের ক্ষেত্রেই খুব উপকারি।

ল্যাভেন্ডার এসেন্সিয়াল অয়েলের ক্ষেত্রে  আপনি Skin cafe lavender  essential oil / Ilana lavender essential oil ব্যবহার করতে পারেন। এগুলো ত্বকের জন্য খুবই কার্যকরী।

★★সতর্কতা 

১) মাস্ক ব্যবহারের পূর্বে ত্বক ভালোভাবে পরিস্কার করে নিন। 

২) কখনোই গরম দুধ কিংবা গরম পানির সাথে মধু মেশাবেন না৷ এতে ত্বকের উপকারের চেয়ে অপকার হবে। 

৩) মাস্ক ব্যবহারের পূর্বে হাতে কিংবা গলার একপাশে অল্প একটু লাগিয়ে যাচাই করে নিন এর কোনো উপকরণে আপনার এলার্জি হয় কি না। যদি না হয় তাহলে ব্যবহার করুন আর হলে অন্য মাস্ক ট্রাই করুন। 

৪) মাস্ক হালকা শুকিয়ে এলে একটু পানি হাতে নিয়ে হালকা হাতে ম্যাসাজ করে ধুয়ে নিন। 

৫) মাস্ক ব্যবহারের পর অবশ্যই এন্টি এজিং ময়েশ্চারাইজার ক্রিম ব্যবহার করতে হবে। এতে ত্বকের স্বাভাবিক আদ্রতা বজায় থাকবে। 

৬) মেকাপ করার সময় maybelline anti age concealer ব্যাবহার করা যেতে পারে। এতে করে একদিকে যেমন মেকাপ হবে অন্য দিকে এন্টি এজিং এর কাজ ও হয়ে যাবে। 

বাজারে আমরা অনেক ধরনের এন্টি এজিং ক্রিম পেয়ে যায় কিন্তু নিজের ত্বকের সাথে উপযোগী এবং কার্যকরী মাস্ক পেতে হিমশিম খেয়ে যায়। এবার তাহলে আর কোনো চিন্তা নেই এন্টি এজিং নিয়ে।

ঘরে বসেই আপনার ত্বকের উপযোগী মাস্ক টি নিয়মিত ব্যবহার করুন আর পেয়ে যান মসৃণ এবং ফ্ল-লেস ত্বক সহজেই। 

ও হ্যাঁ, উপরে সাজেস্ট করা অয়েল কোথায় পাবেন এটা নিয়ে অনেকে চিন্তিত হতে পারেন,আর পেলে অরিজিনাল হবে নাকি এটাও একটা প্রশ্ন।  চিন্তার কোনো কারণ নেই চলে যান www.carnesia.com ওয়েবসাইটে পেয়ে যাবেন আপনার প্রয়োজনীয় সব অয়েল।

আপনার চিন্তা আরো কমিয়ে দিলাম।এবার তাহলে হয়ে যাক ঘরোয়া রূপচর্চা এবং এন্টি এজিং থেকে মুক্তি। 

 

লেখকঃ জাহান জিনাত( বিউটি অ্যাডভাইজার কারনেসিয়া )

তথ্য ও ছবিঃ গুগোল

Leave a Comment

Recent Posts

বডি শপ সিউইড ক্লিনিজিং জেল ওয়াশ(The Body Shop Seaweed Cleansing Gel Wash)

আপনার ত্বক যে টাইপেরই হোক না কেন, তা আপনার কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। তাই সবাই-ই চায় সুন্দর ও হেলদি স্কিন যা… Read More

2 years ago

বডি শপ ভিটামিন ই ক্রিম ক্লিনজার(The Body Shop Vitamin E Cream Cleanser)

বডি শপ ভিটামিন ই ক্রিম ক্লিনজার(The Body Shop Vitamin E Cream Cleanser) হলো একটি ফেসিয়াল ক্রিম ক্লিনজার যা আপনার মুখের… Read More

2 years ago

নিউট্রোজিনা ভিজিবিলি ক্লিয়ার পিঙ্ক গ্রেপফ্রুট ফেসিয়াল ওয়াশ(Neutrogena Visibly Clear Pink Grapefruit Facial Wash)

যদি এমন হয় আপনার ত্বক আগের থেকে আরও সুন্দর ও গোলাপি আভা দিচ্ছে? এখন আপনিও পেতে পারেন আকর্ষণীয় ত্বক৷ নিউট্রোজিনা… Read More

2 years ago

দি বডি শপ অ্যালো কালমিং ফোমিং ওয়াশ(The Body Shop Aloe Calming Foaming Wash)

আপনার সংবেদনশীল ত্বকের জন্য আপনি অবশ্যই ভালো এবং স্কিন টাইপ অনুযায়ী ফেইস ওয়াশ কেনা উচিৎ। কেননা যে কোনো কিছু আপনার… Read More

2 years ago

টি ট্রি 3-ইন-1 ওয়াশ স্ক্রাব মাস্কটি(The Body Shop Tea Tree 3-In-1 Wash Scrub Mask)

টি ট্রি 3-ইন-1 ওয়াশ স্ক্রাব মাস্কটি(The Body Shop Tea Tree 3-In-1 Wash Scrub Mask) সব দিকেই দক্ষ। এটি মুখের ধোয়া… Read More

2 years ago

সুপারড্রাগ ভিটামিন সি ফেসিয়াল ক্লিনজার 150 মিলি(Superdrug Vitamin C Facial Cleanser 150ml)

আমরা সকলেই জানি ভিটামিন-সি মুখের ক্লিনজার হিসেবে অনেক বেশি কার্যকর। আর তা যদি হয় প্রাকিতিক উপাদানে ভরপুর তাহলে তো আর… Read More

2 years ago

This website uses cookies.