চামড়া ভাঁজ পড়া ও ঝুলে যাওয়া প্রতিকার করতে ৪টি ধাপে ফেসিয়াল পদ্ধতি

Facial procedure in 4 steps to cure skin folds and sagging

ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার পাশাপাশি আমরা আরেকটি সমস্যার সম্মুখীন হয় সেটা হলো চামড়া ভাঁজ পড়ে যাওয়া এবং ঝুলে যাওয়া। সাধারণত বয়স বাড়ার সাথে সাথে এই সমস্যা টা আমরা লক্ষ্য করি। 

কারণ বয়স বাড়ার সাথে সাথে ত্বকের ইলাস্টিন ও কোলাজেনের গঠনে পরিবর্তন দেখা দেয় যার ফলে ত্বক স্থিতিস্থাপকতা হারায় এবং ত্বক নিজের ময়েশ্চারাইজিং উপাদান হারায় এর জন্য ত্বক ঝুলে পড়ে। 

আর এই ইলাস্টিন  কমে যাওয়ার প্রধান কারণ হলো দীর্ঘসময় ধরে বাহিরে থাকা, দ্রুত ওজন কমা, কম খাওয়া, পানি কম পান করা এবং ভুল স্কিন কেয়ার প্রোডাক্টস ব্যবহার করা। 

NYX bangladesh

এতে করে ত্বক ঝুলে যাওয়ার পাশাপাশি ত্বকে বলিরেখা, ফাইন লাইন ও স্পষ্ট হয়ে যায়।  

নিজেকে সুন্দর রাখতে কে না চায় বলুন। ত্বকে ভাঁজ পড়া, ঝুলে পড়া এই সমস্যা গুলো  আমাদের সেই সৌন্দর্য টা কে কেড়ে নেয়।তাই আমরা বিভিন্ন ভুল স্কিনকেয়ার প্রোডাক্টস ব্যবহার করি যা আমাদের ত্বকে দীর্ঘ মেয়াদি ক্ষতি করে।

কিন্তু সেই স্কিন কেয়ারটা যদি ঘরোয়া পদ্ধতি তে শুরু করেন তাহলে আশানুরূপ ফলাফল পেয়ে যাবেন। 

চলুন আজ জেনে নিই, কিভাবে আপনি ঘরোয়া ভাবে ত্বকের ভাঁজ পড়া এবং ঝুলে পড়া প্রতিকার করবেন সেই সম্পর্কে। 

এক্ষেত্রে আপনাকে কয়েকটি ধাপ অবশ্যই মেনে চলতে হবে। 

★ ক্লিনজিংএবং এক্সফোলিয়েশন : নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার রাখা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 

এতে করে ত্বকের লোমকূপ পরিষ্কার থাকবে। 

আপনি চাইলে ঘরোয়া ভাবে ক্লিনজার প্যাক তৈরী করে ব্যবহার করতে পারেন। 

পরিমানমত খোসা সহ আপেলের পেস্টের সাথে ২ টেবিল চামচ দই, ১ চা চামচ অলিভ অয়েল আর ১ চা চামচ লেবু/ কমলার রস একসাথে মিশিয়ে মুখে এবং গলায় হালকা হাতে সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করুন। তারপর ১০-১৫মিনিট অপেক্ষা করে হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ক্লিনজার আপনার ত্বকের উপর কাজ করবে আর রক্ত সারকুলেশনের গতিকে আরও ত্বরান্বিত করবে। 

 

সপ্তাহে ১ / ২বার এক্সফিয়েশন করা আবশ্যক।  এটি আপনার ত্বকের মৃত কোষকে বের করে এনে আপনার ত্বক কে  মসৃণ রাখবে। 

ফেসিয়াল মাস্ক ব্যবহারের পুরোপুরি কার্যকারিতা পাবেন স্কিন এক্সফলিয়েশন করলে। 

★ মুখের ব্যায়াম : শরীর এবং ত্বকের যত্নে ব্যায়ামের ভুমিকা অতুলনীয়। 

সবচেয়ে খারাপ জায়গা হচ্ছে মুখের ও ঘাড়ের ত্বক ঝুলে পড়া। বিশেষ করে চিবুকের ত্বক ঝুলে পড়তে শুরু করে তাড়াতাড়ি। তাই চেষ্টা করুন নিয়মিত মুখের ব্যায়াম করার।

চিবুকের ত্বক টানটান করার জন্য মুখ ভর্তি করে বাতাস নিন, ৩০ সেকেন্ড অপেক্ষা করুন, তারপর ছেড়ে দিন। ৩০ গুণতে যে সময় লাগে সেই সময় পর্যন্ত দিনে দুইবার করে করুন। এইরকম আরো মুখের ব্যায়াম আছে যেমন- চিবুক উঠিয়ে সিলিং এর দিকে তাকিয়ে থাকুন, ৩০ সেকেন্ড পর নামিয়ে নিন। এভাবে মুখের  এক্সারসাইজ করলে আস্তে আস্তে ত্বকের ভাঁজ গুলো দূর হবে।

 

★ ফেসিয়াল মাস্ক  : ত্বক টানটান করার জন্য অন্যতম উপায় হচ্ছে ফেসিয়াল মাস্ক ব্যবহার করা।

ত্বকে ভাঁজ পড়া এবং ঝুলে পড়া প্রতিকার করতে কয়েকটি মাস্ক খুব কার্যকরী। যেমন,  ডিমের সাদা অংশ, লেবু, অ্যালোভেরা, মধু ও শশা ইত্যাদি উপকরণ দিয়ে তৈরী করা মাস্ক। 

চলুন এবার জেনে নেই  কয়েকটি ফেসিয়াল মাস্ক সম্পর্কে।  

১) শশা মাস্ক : ১/৪ ভাগ খোসা ছাড়ানো শশা পেস্ট করে  সাথে ১টি ডিমের সাদা অংশ, ১ চা চামচ লেবুর রস নিন। এই সবগুলো উপাদান ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর মাস্কটি মুখে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে নিন।

শশা মুখের কালো দাগসহ রিঙ্কেল কমিয়ে দেবে, ডিমের সাদা অংশ ত্বক কে  টাইট করবে আর লেবুর রস এক্সফোলিয়েট করবে। 

nior Bangladesh

২) এভোক্যাডো মাস্ক : ১টি ডিমের সাদা অংশ স্টিফ টেক্সচার না পাওয়া পর্যন্ত ফেটান। এর সাথে ১/৪ ভাগ  এভোক্যাডো পেস্ট , আর ১ চা চামচ মধু মিশান। এরপর পেস্ট টি মুখে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন।  

এই স্মুথ পেস্ট ত্বক কে হাইড্রেট এবং ময়েশ্চারাইজ করবে। ত্বকে ভাঁজ পড়া শুরু করে যখন ত্বকের  প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার কমতে শুরু করে তখনই। 

৩)ভিটামিন ই : ৩টি ভিটামিন ই ট্যাবলেট কেটে একটি বাটিতে নিন তারপর এতে যোগ করুন ২ টেবিল চামচ টক দই, হাফ চা চামচ মধু এবং হাফ চা চামচ লেবুর রস। এই মিশ্রণটি একটি কটন বলের সাহায্যে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। তারপর উষ্ণ গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এটি আপনার ত্বকে পুষ্টি   যোগায় ত্বক কে টানটান রাখতে সাহায্য করবে এবং ত্বক কে উজ্জ্বল করবে ভেতর থেকে৷ 

এই কয়েকটি মাস্ক থেকে আপনার ত্বক উপযোগী মাস্কটি ব্যবহার করুন। 

★ অয়েল ম্যাসাজ : মুখে ও ঘাড়ে প্রাকৃতিক তেল যেমন- অলিভ অয়েল ম্যাসাজ করলে ঝুলে পড়া ত্বক দৃঢ় হয়। অলিভ অয়েলে ভিটামিন এ ও ই থাকে যা অ্যান্টি এজিং হিসেবে কাজ করে।

অলিভ অয়েল সামান্য গরম করে,আঙ্গুল দিয়ে বৃত্তাকারে মুখে ম্যাসাজ করতে থাকুন ১০ মিনিট যাবত।

প্রতিদিন ঘুমানোর আগে এটা করুন।এছাড়াও নারিকেল তেল, জোজোবা বা আমন্ড তেল ও ব্যবহার করতে পারেন।

এক্ষেত্রে Skin cafe  কিংবা Ilana ব্র্যান্ডের অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। এই ২টা ব্র্যান্ডের অয়েল ত্বকের জন্য খুবই কার্যকরী।

এই ২টা ব্র্যান্ডের যেকোনো অয়েল পেতে ভিজিট করুন carnesia.com এ। সহজেই পেয়ে যাবেন আপনার ত্বক পরিচর্যার সবকিছু। 

 

★★টিপস ও সতর্কতা 

১) প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন এতে আপনার ত্বক আদ্র থাকবে সবসময়। আর আপনার ত্বকের ঝুলে পড়ার সমস্যা থেকেও মুক্তি পাবেন। 

২) প্রতিদিন খাবারের ম্যানুতে শাক সবজি এবং সুষম খাবার রাখুন। 

৩) খুব বেশী প্রয়োজন না হলে গোসলে গরম পানি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। এটি আপনার ত্বকের ইলাস্টিন ক্ষমতা কে কমিয়ে দেয় যার কারণে ত্বকে ভাঁজের সৃষ্টি হয়।

৪) ফেসিয়াল মাস্ক ব্যবহার করার পর অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। 

৫) মাস্ক তৈরীর আগে কোনো উপকরণে আপনার এলার্জি আছে নাকি যাচাই করে নিন। 

৬) বাহিরে বের হওয়ার ২০ মিনিট আগে ভালো মানের সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। এটি আপনার ত্বক কে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে সুরক্ষিত রাখবে।  

Milani in Bangladesh

সর্বশেষ, দ্রুত মাত্রায় ওজন কমানোর চেষ্টা না করে নিয়মিত ব্যায়াম এবং খাদ্যোভাস সঠিক রেখে ওজন কমানোর চেষ্টা করুন। এতে আপনার ত্বকে ইলাস্টিন ক্ষমতা সক্রিয় থাকবে।

 

লেখকঃ জাহান জিনাত ( বিউটি এক্সপার্ট কারনেসিয়া )

তথ্য ও ছবিঃ গুগোল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *